Radhe Shyam 2022 Movie Review

Radhe Shyam 2022 Movie Review

Radhe Shyam 2022 Movie Plot

Radhe Shyam 2022 Movie Review: পরিচালনা করেছেন কে.কে. রাধাকৃষ্ণ কুমার। সঙ্গে প্রভাস, পূজা হেগড়ে, ভাগ্যশ্রী পাটবর্ধন, কৃষ্ণমরাজু। 1976 সালে, বিক্রমাদিত্য, একজন পামিস্ট এবং পরমহংসের শিষ্য, ভারতের প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীর কাছে ভবিষ্যদ্বাণী করেছিলেন যে তিনি শীঘ্রই দেশে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করবেন। ভবিষ্যদ্বাণীটি সত্য হয় এবং তিনি বিখ্যাত হয়ে ওঠেন কিন্তু এর জন্য দেশ ছাড়তে হয়। দুই বছর পর বিক্রমাদিত্য ইতালির একজন বিখ্যাত পামিস্ট এবং সব জায়গায় ভ্রমণ করতে ভালোবাসেন। অনেকদিন পর মা ও বন্ধু বেদান্তের সাথে থাকার জন্য সে তার বাড়িতে ফিরে আসে।

বিক্রমাদিত্য প্রেমে বিশ্বাস করেন না এবং মহিলাদের সাথে তার ছোট সম্পর্ক রয়েছে। ট্রেন যাত্রার সময় সে প্রেরণার সাথে দেখা করে এবং তার সাথে পড়ে। একবার বিক্রমাদিত্য একজন ব্যবসায়ী মহেন্দ্র রাজপুতের কাছে ভবিষ্যতবাণী করেন, যার জন্য তিনি প্রস্তুত নন। তার লোকজন তাকে রাস্তায় ধাওয়া করে যেখানে সে দুর্ঘটনার শিকার হয় এবং হাসপাতালে যায় যেখানে প্রেরণা একজন ডাক্তার হিসাবে কাজ করে। বিক্রমাদিত্য এবং প্রেরণা প্রেমে পড়েন কিন্তু তার চাচা তাকে তার থেকে দূরে থাকতে বলেন। একবার একটি ট্রেনে ভ্রমণ করার সময় বিক্রমাদিত্য দেখতে পান যে এটির সমস্ত যাত্রীর আয়ু কম এবং ট্রেনটি দুর্ঘটনায় পড়বে। সে তাদের বাঁচানোর চেষ্টা করে কিন্তু বৃথা। প্রেরণা তার ভবিষ্যদ্বাণীতে বিশ্বাস করতে শুরু করে এবং তাকে তার হাতের তালু পরীক্ষা করতে বলে এবং তার বাহুতে পড়ে যায়। তার মামা আদিত্যকে বলে যে প্রেরণা বিরল টিউমারে ভুগছে এবং কয়েক মাস বেঁচে আছে। কিন্তু বিক্রমাদিত্য বলেছেন যে তিনি প্রেরণার হাতের তালু দেখেছেন এবং তার দীর্ঘ জীবন আছে এবং তার ভবিষ্যদ্বাণী কখনও যায় নি

মুভি-ঃ Radhe Shaym (2022)

ধরন-ঃ ড্রামা, রোমান্স

পরিচালক-ঃ কে কে. রাধাকৃষ্ণ কুমার

অভিনয়-ঃ প্রভাস, পূজা হেগড়ে, ভাগ্যশ্রী, জগপতি বাবু, মুরলি শর্মা,

রানটাইম-ঃ ২ ঘন্টা ১৮ মিনিট | আইএমডিবি-ঃ ৫.৩/১০

দেখে ফেললাম প্রভাসের বিগ বাজেটের মুভি “” রাধে স্যাম “”

আর দেখার পর শুধু একটা কথা মাথায় আসলো যে যখন এলাকার চাচাতো ভাই কোনোক্রমে একদিন নো বলে ছক্কা মেরে ম্যাচ জিতিয়ে ফেলে নিজেকে ম্যাক্সওয়েল ভাবা শুরু করে প্রতি ম্যাচ ওপেনিং ব্যাট করে আর বাশ গুলো খায় 😭 ( প্রভাস কে ছোট করা উদ্দেশ্য নয় উদ্দেশ্য হলো সব মুভি বাহুবলি হবেনা তাই শুধু বিগ বাজেট বিগ বাজেট করে মারা না খাওয়াই ভালো )

যায় হোক এবার মুভি নিয়ে বলি এটাও সাহোর ব্যাতিক্রম নয়,,, এটাও সাহোর মতো বিগ বাজেটের অহেতুক মুভি……মুভি নিয়ে সকলের এক্সপেক্টশন অনেক ছিলো যেমন ভেবেছিলো সবাই মুভি টাইম-ট্রাভেল নিয়ে জটিল একটা কাহানী হবে কিন্তু আসলে মুভি একেবারে সিম্পল কাহানী.…..আর প্রভাসের হিন্দি ভয়েস নিয়ে বলার কিছুই নাই একেবারে…. 😭

তবে পজিটিভ সাইড হলো মুভির VFX ,কালার গ্রেডিং মারাত্মক ছিলো,, ভালো কয়েকটা গান সাথে ভালো কিছু লোকেশন 💖

চাইলে দেখতে পারেন খারাপ লাগবে না।এক্সপেক্টশন কমায় রাখবেন তাহলে ভালো লাগবে।

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *